Ad Clicks : Ad Views : Ad Clicks : Ad Views : Ad Clicks : Ad Views :
img

এই গরমে আপনার সোনামুনিকে কি ভাবে যত্ন নিবেন জানেন কি  (BABY’S CARE)

/
/
/
159 Views

শীত তো চলেই গেলো, পড়েছে গরম। আর গরম কালটা শিশুদের জন্য খুবই মারাত্মক সমস্যা। কারন আবহাওয়ার পরিবর্তন হয়। আমরা সবাই জানি যে, আবহাওয়ার পরিবর্তনের সাথে সাথে আমাদের প্রতিদিনের চলা ফেরা খাদ্য অভ্যাস পরিবর্তন আনতে হবে। কেননা শীত আর গরমের মধ্যে অনেক পার্থক্য। তাই আমরা সবাই সর্তকভাবে শিশুদের যত্ন নিব। কারণ একজন পূর্নবয়স্কর মানুষ গরম সহ্য করতে পারে না। আর ভাবেন একটি শিশুর ত্বক তো একজন পূর্ণবয়স্কর মানুষের চেয়ে অনেক নরম ও কোমল। তাই গরমে শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাই একটু বাড়তি সর্তকতার সাথে আপনার সোনামুনিকে যত্ন নিন। কারণ শিশুরা বেশির ভাগ অসুস্থ হয় গরমে।

এই গরমে আপনার শিশুকে কিভাবে যত্ন নিবেন

একটি বাচ্চা যখন অসুস্থ তাকে তাহলে তার মা-বাবার দুচিন্তার কোন শেষ তাকে না। বিশেষ করে মা চিন্তটা একটু বেশি থাকে এটাই স্বাভাবিক। তাই আজ আমরা একটু কষ্ট করে জেনে নিব কিভাবে গরমে শিশুদের যত্ন নিতে হবে।

১. শিশুর প্রতিদিনের খাদ্য

একটি শিশুকে সুস্থ রাখতে হলে প্রথমত তার খাবার খাওয়ানোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। যেহেতু শিশুদের ত্বক খুবই পাতলা তাই শিশুরা যখন ঘামে তার দেহের মধ্যে থাকা পানি খুব সহজেই বাহির হয়ে যায়। তাই তাকে খুব সর্তকতার সাথে পর্যপ্ত পরিমানে পানি পান করাতে হবে। যদি শিশু মায়ের দুধ খাই তাহলে তাকে ঘন ঘন মায়ের দুধ দিন। আর যদি দুধ ছাড়া বাড়তি অন্য কিছু খাবার খাওয়ানো যায় তাহলে তাদের কে বেশি পরিমানে মাছ, মাংস, ভাত না খাওয়ান। তাদের কে পরিমান মত খাবার খাওয়ান। আর খাবার তালিকায় শাক-সবজি রাখুন। বিশেষ ভাবে একটি কথা যে বাহিরের খাবার একদম খাওয়ানো যাবে না। কারন এই সব খাবারে শিশুর ফুড পয়জন হতে পারে। বাড়তি খাবার হিসেবে  তাদের কে টাটকা ফল কিংবা ফলের রস খাওয়াতে পারেন। ডাবের পানি, লেবুর রস, বাটারমিল্ক খাওয়াতে পারেন। এতে গরমে শিশুদের ক্লান্তি দূর হবে।

২. নিয়মিত গোসল ও পরিষ্কার রাখুন

গরমের মধ্যে শিশুরা একজন প্রাপ্ত বয়সকর মানুষের তুলনায় বেমি ঘামে থাকে। আর বেশি পরিমানে ঘামার কারণে ঘামাচি হয়ে যায়। আর শিশুরা একটু বেশি ছোটাছুটি করে তাই তাদের শরীর একটু বেশি ময়লা হবে এটাই স্বাভাবিক। তাই লক্ষ্য রাখতে হবে যে, ঘামের সাথে তার শরীরে ধূলাবালি বা ময়লা যেন তার শরীরে মধ্যেই শুকিয়ে না যায়। কেননা যদি শুকায় তাহলে তার ত্বকের সমস্যা হতে পারে। তাই একটু সর্তকতার সাথে শিশুকে পরিষ্কার রাখুন। তাকে গোসল করানোর সময় অব্যশই ডেটল এবং শিশুদের সাবান ব্যবহার করবেন।

৩. কি ধরনের পোশাক ব্যবহার করা উচিত

আমরা সবাই এটা জানি যে গরমে আমরা বেশি ঘামার কারণে সুতি কাপড় পড়তে একটু বেশি কমফরটেবল ফীল করি। তাই শিশুকে সুতি কাপড় পড়তে দিন। যদি শিশু ঘামে তাহলে তার শরীরে ঘাম শুষন করে । আর সুতি কাপড় পড়ে স্বস্তি বোধ করে। অন্যন্যা সুতার কাপড় পড়লে গরম আরও বেশি লাগে অস্বস্তি লাগে।

৪. চুলের যত্ন ও নখ কেটে রাখুন

গরমে শিশুদের চুল একবারে ছোট করে রাখুন। আরও সবচেয়ে বেশি ভাল হয় যদি মাথা ন্যাড়া করে রাখতে পাড়েন। চুল থাকলে মাথা বেশি ঘামে। তাই চুলের গুড়ায় চুলকায়। আর নখ যদি বড় তাহলে কেটে দিন। তাহলে নখের মধ্যে থাকা ময়লা তার শরীরে প্রবেশ করতে পারবে না।

৫. বাড়ি ঘর ও তার খেলার আশপাশ পরিষ্কার রাখতে হবে

আমাদের বাসাবাড়িতে প্রতিদিন অবশ্যই নানা ধরনের ময়লা জমা হয়। তাই এই গুলো পরিষ্কার রাখতে হবে। কারন বাচ্চারা যখন খেলা করে তাহলে তাদের শরীরে লাগতে পারে। আর বাড়ির মধ্যে থাকা ঝোপঝাড় ও অপরিষ্কার স্থান গুলো পরিষ্কার করে নিব।

৬. শিশুর ব্যবহার উপযোগী প্রসাধনী

গরম কালে সূর্যের তাপ বেশি। আর শিশুর ত্বক নরম ও কোমল হওয়া তার জন্য শিশুদের ব্যবহার উপযোগী সানস্কিন লোশন ব্যবহার করতে পারেন। আর অতিরিক্ত গরমে যদি শিশুর ঘামাচি হয়ে যায় তাহলে বাজারে শিশুদের জন্য ঘামাচি পাওডার পাওয়া যায় তা ব্যবহার করাতে পারেন।  গোসল করার জন্য শিশুদের ডেটল ও সাবান ব্যবহার করুন। তার শরীর মুছার জন্য সপ্ট ও পরিষ্কার তোয়ালে ব্যবহার করতে হবে।

৭.  ঘুম পর্যাপ্ত পরিমানে

একজন শিশুর প্রাপ্ত বয়স্কর মানুষের চেয়ে বেশি ঘুমানো উচিত। তাই শিশুদের কে প্রতিদিন নিয়মিত দশ থেকে বার ঘন্টা ঘুমানো উচিত। আর ঘুমানোর স্থানটি যেন পরিষ্কার ও পর্যাপ্ত আলো বাতাস থাকে। প্রাকৃতিক আলো বাতাস হলে আরও বেশি ভাল। কারন ফ্যান কিংবা এসির বাতাসে শিশুর ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। যেহেতু তার সহ্য ক্ষমতা কম তাই।

                                          * বিশেষে একটি পরামর্শ *

# গরমে যদি বাচ্চা একেবারে বেশি অসুস্থ হয়ে যায় তাহলে তাকে অবশ্যই শিশু বিশেষজ্ঞ ডাক্তরের কাছে নিতে হবে। আর যদি নবজাতক শিশু হয় তাহলে যত দ্রুত নেওয়া যায়।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar